মৃত্যুর ওপার থেকে

আমি নির্ভয়া| দু’চোখে একরাশ রঙিন ভবিষ্যতের স্বপ্ন নিয়ে এসেছিলাম দিল্লিতে| ইচ্ছে ছিল মনে, বাঁচাব কটা মানুষের জান| আব্বা আম্মি আমায় যতটুকু সম্ভব ততটুকু দিয়েছিলেন তাঁদের সাধ্যমতন| তার বদলে পেলাম কি? জানেন তো?
রাতের বাসে চেপে ফিরছিলাম আমি| একা মেয়ে গোটা বাসে| তার সুযোগ নিল কতগুলো মুখোশ পরা মানুষ| কালো পর্দার আড়ালে শেষ হয়ে গেল আমার ইজ্জত| ওকে বেঁধে ওর চোখের সামনে আমাকে লুটল ওরা|
তবু আমি হাল ছাড়িনি| আমি বাঁচতে চেয়েছি| দাঁতে দাঁত চিপে হসপিটালের বেডে শুয়ে লড়াই করে গিয়েছি যমদূতগুলোর সাথে| হারতে চাইনি আমি| আমার বাঁচার আকুলতা পৌঁছেছিল বাইরে| ধন্যবাদ আপনাদের সক্কলকে, যারা আমার জন্যে দোয়া করেছিলেন| যারা সাড়া দিয়েছিলেন আমার আবেদনে|
আজ আমার মৌতের জন্য আসল দায়ী যে, সে সেলাই মেশিনে কল নিয়ে নয়া জীবন শুরু করতে যাচ্ছে| জানেন, আমি সারাজীবন ভেবে এসেছি, আমি লোকদের বাঁচাব| আজ সেই লোকেদের মধ্যেই কেউ মেরে ফেলল আমাকে| ‘সেলাম’ সেই আইনকে, যে অন্ধা হবার ভান করে| সেলাম সেই জজসাবকে, যিনি একজনের মৃত্যুর থেকে আরেকজনের জীবনকে বেশি গুরুত্ব দেন| সত্যিই তো, বাঁচার থেকে বড় আনন্দ আর কিসে আছে? বেডে শুয়ে মরতে মরতে আমি বুঝেছিলাম জীবন কি| সেই ছেলেটাও হয়তো ঝোঁকের মাথায় করেছিল কাজটা| কিন্তু তার চোখে যে জিঘাংসা ছিল, তা তো ঝোঁক নয়! সে যে আমায় বাঁচাতে না এসে আমার ইজ্জত লুটেছিল, তা তো ঝোঁক নয়! তা তার নাবালকত্বকে সমর্থন করে কি? সবাই যখন তাকে ধিক্কার দিচ্ছে, সে তখন ব্যস্ত নিজের মুখ ঢাকতে| ‘সেলাম’ সেই পুলিশভাইয়াদের, যারা আজ তার এই অবস্থার জন্যে দায়ী|
জানেন তো? আমার আব্বা আম্মি ওই অমানুষটার ছাড়া পাওয়ার বিরুদ্ধে কথা বলেছিলেন বলে তাঁদেরকে তুলে নিয়ে গেল পুলিশ? ওই লেড়কা হয়তো আর কোনওদিন খোদার কাছে মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবে না| কিন্তু তাতে কি আর বাকি শয়তানদের কিছু এসে যায়? নাকি,  আমার হিন্দুস্তানী বেহেনদের ইজ্জত রক্ষার প্রতিশ্রুতি দেবে কেউ?
জানেন তো, আমার বন্ধুটাকে আমার চোখের সামনে বেঁধে রেখে ওরা ওকেও মারছিল| রক্তাক্ত করে দিয়েছিল ওকে|
আর ও অসহায়ভাবে তাকিয়ে তাকিয়ে দেখেছিল কিভাবে আমি তিলে তিলে শেষ হয়ে গিয়েছিলাম| কতটা পাশবিকতাই না থাকতে পারে মানুষের মধ্যে| না না, ভুল বললাম| ওরা তো মানুষ নয়! ওরা জানোয়ার| হিংস্রতার নিশান|
আজ যদি আপনার কাছের কারোর সাথে অমন কিছু হয়, সেটা কিন্তু ওই ‘নাবালক’ এর মতন জানোয়াররাই করবে|

জানেন তো?

সেলাম|

Advertisements

3 thoughts on “মৃত্যুর ওপার থেকে

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s